আজ ২২শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই জুলাই, ২০২২ ইং

হামলার পর পর্যটকদের ভিড় কমেছে জাফলংয়ে

প্রকৃতিকন্যা খ্যাত সিলেটের জাফলংয়ে হামলার ঘটনায় পর্যটকদের উপস্থিতি কমে গেছে। শুক্রবার (৬ মে) মাত্র হাজারখানেক পর্যটককে জাফলংয়ে আনন্দ-উচ্ছ্বাস করতে দেখা গেছে। অথচ বিগত তিনদিন জাফলংয়ে পর্যটকদের উপস্থিতি ছিল আজকের তুলনায় প্রায় ৫০ গুণ বেশি।

জাফলং পর্যটনকেন্দ্রে টিকিট (প্রবেশ ফি) কাটাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার (৫ মে) অতর্কিত হামলার শিকার হন ঢাকার কয়েকজন পর্যটক। ঘটনার পরপরই কঠোর পদক্ষেপ নেয় জেলা ও পুলিশ প্রশাসন। হামলাকারী পাঁচজন স্বেচ্ছাসেবককে আটক করা হয়। তারপরও এ ঘটনায় পর্যটক উপস্থিতিতে প্রভাব পড়েছে জাফলংয়ে।

তবে সিলেট জেলার অন্য সব পর্যটনকেন্দ্রে ভিড় দেখা গেছে। শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় ঈদের আমেজ এখনো কাটেনি। ভোলাগঞ্জের সাদাপাথর আর বিছনাকান্দিতে পর্যটকদের ভিড় অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

গোয়াইনঘাটের জাফলং থেকে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের সবুজ পাহাড় আর পাহাড় থেকে নেমে আসা ঝরনা ধারা সবচেয়ে বেশি আকৃষ্ট করে পর্যটকদের। এছাড়া বিছনাকান্দি, জৈন্তাপুরের সারি নদী, কোম্পানিগঞ্জের সাদাপাথর, উৎমাছড়া এবং মিঠাপানির একমাত্র জলারবন রাতারগুলের সবুজের সমারোহে পর্যটকদের ভিড় থাকে সবসময়ই।

ভৈরব থেকে সিলেটে ঘুরতে আসা মারজানা আক্তার নামের একজন পর্যটক  বলেন, ‘যতবার সিলেট ঘুরতে আসি ততবারই জাফলং ঘুরতে আসি। আজও এলাম। তবে শুনেছি বৃহস্পতিবার এখানে কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। তবে আজ আর সেই পরিবেশ নেই। ট্যুরিস্ট পুলিশের উপস্থিতি আছে। তারা পর্যটকদের আনন্দ-বিনোদনে সহায়ক ভূমিকা রাখছেন। এতে আমি খুশি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ