আজ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মে, ২০২৪ ইং

৪৫তম প্রিলিতে অংশ নেননি ৭৮ হাজার পরীক্ষার্থী

৪৫তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নেননি ৭৮ হাজার ৮০৩ জন। যা মোট পরীক্ষার্থীর ২২ দশমিক ৭৬ শতাংশ। আবেদন করেও পরীক্ষা না দেওয়ায় পিএসসির প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকা গচ্চা গিয়েছে। যদিও আবেদন করার সময় পরীক্ষার ফি দিতে হয়েছে পরীক্ষার্থীদের।

পিএসসি জানিয়েছে, শুক্রবার (২০ মে) দেশের আটটি বিভাগীয় শহরে ৪৫তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করছিলেন তিন লাখ ৪৬ হাজার পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে অংশ নিয়েছেন দুই লাখ ৬৮ হাজার ১১৯ জন। সে হিসেবে পরীক্ষা দেননি ৭৮ হাজার ৮০৩ জন। পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৭৭.২৪ শতাংশ।

পিএসসি বলছে, আবেদন করা শিক্ষার্থীদের অনুপাতে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র, হাজিরা শিটসহ আনুষঙ্গিক সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়। কিন্তু
আবেদন করেও পরীক্ষায় না নেওয়ায় তাদের প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকা গচ্চা গেল।

সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেন, এবারের ৪৫তম বিসিএসে অংশ নিতে আবেদন করছিলেন তিন লাখ ৪৬ হাজার পরীক্ষার্থী। সব পরীক্ষার্থীর জন্য আমাদের প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু পরীক্ষা দেননি ৭৮ হাজার ৮০৩ জন। এতে পিএসসির প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা গচ্চা গিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, এবার বিসিএসের আবেদন ফি ছিল ৭০০ টাকা। তবে কোটাধারী প্রার্থীদের ফি ছিল ১০০ টাকা।

পিএসসি বলছে, আবেদন করা শিক্ষার্থীদের অনুপাতে পরীক্ষার প্রশ্নপত্র, হাজিরা শিটসহ আনুষঙ্গিক সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়। কিন্তু
আবেদন করেও পরীক্ষায় না নেওয়ায় তাদের প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকা গচ্চা গেল।

সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেন, এবারের ৪৫তম বিসিএসে অংশ নিতে আবেদন করছিলেন তিন লাখ ৪৬ হাজার পরীক্ষার্থী। সব পরীক্ষার্থীর জন্য আমাদের প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু পরীক্ষা দেননি ৭৮ হাজার ৮০৩ জন। এতে পিএসসির প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা গচ্চা গিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, এবার বিসিএসের আবেদন ফি ছিল ৭০০ টাকা। তবে কোটাধারী প্রার্থীদের ফি ছিল ১০০ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ